EAST BENGAL the Real POWER -The Official Website
EAST BENGAL the Real POWER Fans

বিষাদের রঙে মিশে মশালের দীপ্তি...

লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি-র উপলব্ধিটা অনবদ্য.. "Why does the eye see a thing more clearly in dreams than the imagination when awake ?"

তবে এটাও সত্যি, স্বপ্ন দেখার স্পৃহাটাও থাকতে হবে  l সযত্নে তাকে লালন করতে হবে l সে জেগে হোক, বা ঘুমিয়ে...

পেলে, মারাদোনা হোক, কিংবা হালফিলের মেসি, রোনাল্ডো, নেইমার l ডন, সচিন, কোহলি, ধ্যানচাঁদ, ফেডেরার, সাইনা থেকে সদ্য প্রয়াত আলি কিংবা পিকে, অমল, থাপা, থঙ্গরাজ, ভাইচুং, মেহতাব l স্বপ্ন কে না দেখেন ? কে না দেখেছেন ? শুধু স্বপ্নের সঙ্গে প্রয়োজন পর্যাপ্ত সাধনা, অনাবিল অধ্যবসায় l

সালটা ২০১১ l ফুটবল বিশ্ব তখন লাল-হলুদময় l স্প্যানিশ ম্যাজিকে আচ্ছন্ন l শুধু কলকাতা কেন, গোটা ভারতও যে তখন রোম্যান্টিসিজমের শিখরে l স্প্যানিশ আর্মাডার পাশাপাশি মর্গ্যানাধীন ইস্টবেঙ্গলের লাল-হলুদ সুনামিতে ভেসে যেতে মরিয়া কাশ্মীর থেকে কেরল l উপযুক্ত সময় এর থেকে আর কী বা হতে পারত?

একদল সমর্থক l একরাশ স্বপ্ন l একবুক জেদ l ইস্টবেঙ্গল অন্তপ্রাণ l হৃদয় জুড়ে রিয়্যাল পাওয়ার l ভাল লাগা, ভালবাসায় মিশে থাকা l অন্তহীন পথ চলা l স্বপ্ন রোজই নতুন কিছুর l সাধনায় খামতি নেই l দৃঢ়তায় ঘাটতি নেই l ঠিক যে ভাবে শুরু হয় যে কোনও ভালর, সে ভাবেই শুভারম্ভ - "EBRP Football Fest"

দেখতে দেখতে পাঁচটা বছর পেরিয়ে গিয়েছে I এ বার ৬-এ আমাদের ফুটবল ফেস্ট l দলও ৬টি l যাকে বলে একদম ছয়ে ছয় l রিয়্যাল পাওয়ার আশিয়ান আর্মাডা, রিয়্যাল পাওয়ার বাঙাল ব্যাটালিয়নস, রিয়্যাল পাওয়ার বার্নিং টর্চ, রিয়্যাল পাওয়ার ডার্বি ডায়নামাইটস, রিয়্যাল পাওয়ার পঞ্চ পান্ডভাস এবং রিয়্যাল পাওয়ার পেন্টা ক্রাউন l ৬টি দলে মোট সদস্য ৯০ জন, যাঁরা সকলেই ইস্টবেঙ্গল দ্য রিয়্যাল পাওয়ার-এর একনিষ্ঠ কর্মী-সদস্য l গত দু'বছরের মতো এ বারও 'অকশন'-এর মাধ্যমেই ফুটবলারদের বেছে নেওয়া হয়েছে l ৬টি দলকে দু'টি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে l প্রতি গ্রুপ থেকে দু'টি করে মোট চারটি দল শেষ চারের লড়াইয়ে থাকবে l তবে ফাইনালের আগে এ বার এক বিশেষ আকর্ষণ থাকছে l বাংলার রনজি ক্রিকেট দলের একঝাঁক ক্রিকেটারকে মাঠে দেখা যাবে l ফুটবলের জার্সিতে l গীতিময় বসু, ঋতম পোড়েল, শুভজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়দের 'সিএবি একাদশ' মুখোমুখি হবে 'রিয়্যাল পাওয়ার একাদশ'-এর l সল্টলেক ইই ব্লকের মাঠে উপস্থিত থাকবেন ইস্টবেঙ্গলের লড়াকু সমর্থক প্রয়াত অলীপ চক্রবর্তীর পরিজনেরাও l

বছর দুয়েক হয়ে গেল, প্রিয় ক্লাবের মুকুটে নেই ভারতসেরার পালক l তার উপর প্রিয় অলীপদার অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ময়দান l তাই এ বার নেই পাত পেড়ে খাওয়ার আয়োজন l নেই কোনও আড়ম্বর l আছে শুধু ফুটবল l

'সময়...' এ শব্দের অন্তরেই তো লুকিয়ে থাকে কতকিছু l কত পাওয়া, না পাওয়া... আরও কত কী ! ফুটবল মানেই জয়ের ঝিলিকে অফুরান উল্লাস l আনন্দাশ্রু l আবার কখনও বা যন্ত্রণায় বিদ্ধ হয়ে মন খারাপের দিগন্ত পেরিয়ে হেঁটে চলা l ফুটবল মানেই সময় l আজ খারাপ, তো কাল অবশ্যই ভাল l তাই প্রত্যাশার লৌহদন্ডে কখনই মরচে পড়তে দেওয়া যাবে না l আর সেই আবেগ যখন ইস্টবেঙ্গলকে ঘিরে, তখন সমর্থনের আকাশে রিয়্যাল পাওয়ার যে উদিত সূর্য l আমরা ভারতসেরা হইনি ঠিকই l তবে হাহাকার করব না l আমরা হতাশ হতে পারি l তবে ক্লান্ত হব না l ইস্টবেঙ্গল যাদের রক্তে, তারাই তো বলে, 'বিনা যুদ্ধে নাহি দিব সূচ্যগ্র মেদিনী' l তাই তো, থাকলই না হয় কিছু বাধা, প্রতিবন্ধকতা l তবু আশা রাখি, আমাদের স্বপ্ন-নিষ্ঠা-সাধনাই যে আমাদের ফুটবল ফেস্ট-কে সাফল্যের রাজমুকুট পরাবে l করে তুলবে সর্বাঙ্গ সুন্দর l

অলীপদা, তুমিই তো আমাদের গতি l আমাদের সারথী l তুমিই তো আমাদের দেখাচ্ছ, বিষাদের রঙে মিশে মশালের দীপ্তি...l

আর আমরা বলছি, "তোমার পতাকা যারে দাও তারে বহিবারে দাও শকতি..."

Latest News

More News
Home Page Special Posted on November 01, 2015

East Bengal only Indian side in top 100 of AFC's New Club Rankings

The Red & Gold Brigade has created another history in Indian Foo...