EAST BENGAL the Real POWER -The Official Website
EAST BENGAL the Real POWER Fans

একটি যুগের অবসান | চলে গেলেন ইস্টবেঙ্গলের সবার প্রিয় স্বপন বল |

"তোমারেই যেন ভালোবাসিআছি শতো রুপে, শতোবার। জনমে জনমে, যুগে-যুগে অনীবার।" এরকমই ছিলেন আমাদের প্রয়াত প্রাণভমরা, শ্রী স্বঁপন কুমার বল! জন্ম:২৪ শে ডিসেম্বর, ১৯৪৭। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ করেছিলেন ডিপ্লোমা। নিজের জীবনের সব টুকু দিয়েই ভালোবাসতেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কে। নতুন বছরের শুরু থেকেই বেশ অশুস্থ ছিলেন তিনি। কোমরে একটা ব্যাথা পান।

তার পরেও ১৫ই এপ্রিল ক্লাবের বার পূজো তেও আসেন। গত ক'য়েক মাস ধরে ভুগছিলেন ক্যানসারে। গতকাল রাত ১টা ৫ মিনিটে একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন স্বঁপন বাবু।

সকালে খবর টা ছড়িয়ে পরতেই শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা কলকাতা ময়দানে। আসলে তিনি তো শুধু ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের না, ছিলেন গোটা ভারতীয় ফুটবলের "এনসাইক্লোপিডিয়া!" চাকুরি জীবন ও পরিবার কেদূরে রেখেই নিজের জীবন টা শোপে ছিলেন লাল-হলুদ রঙের প্রতি। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক চার-দশকেরও কিছু বেশি। প্রথম খেলা দেখছিলেন চির-প্রতিদন্দী ক্লাব, মোহনবাগানের বিরুদ্ধে, ১৯৫৭ সালে।

মোহনবাগান কে ১-০ গোলে হারায় ইস্টবেঙ্গল। ১৫০ টারও বেশি টুর্নামেন্টে ছিলেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের ম্যানেজার, জিতিছেন ১৩৩ টা ট্রফি! ভারতীয় ফুটবলের নিয়ম-কানুন ছিলো তাঁর নখদর্পনে।

লাল-হলুদ মশাল বাঁ-বুকে রেখে গেছেন বাংলাদেশ, ইয়েমেন, কিনিয়া, হংকং, শ্রিলঙ্কা, জাপান, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর, আয়ারল্যান্ড, জোরডন, সাউদি-আরব, দুবাই, কুয়েত, নাইজেরিয়া এবং ঘানা। লোকে বলতেন, ওনার ব্লাড-গ্রুপ নাকি ছিলো "ই.বি পজিটিভ", অর্থাৎ, ইস্টবেঙ্গল পজিটিভ। মশাল বাহিনী দের নিয়ে যে কখনোই খারাপ কোনও ধারনাই মাথায় আনতেন না!

সামনেই ১লা আগস্ট। আর দু-বছর পরেই শতোবর্ষে পা দেবে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব, আর ঠিক এই সময়েই আমাদের ছেঁড়ে চলে গেলেন লাল-হলুদ অন্তপ্রান এই মানুষ টা। রেখে গেলেন এক বিশাল শূন্য জায়গা, যেই জায়গা কাউকে দিয়েই পূর্ণ করা যাবেনা। আশিয়ান কাপ, ফেডারেশন কাপ, জাতীয় লীগ ও আরও অনেক ট্রফি জয়ের শাক্ষি থেকেছেন। শুধু আই-লীগ ট্রফি টাকে লাল-হলুদ পতাকায় মুরতে দেখে যেতে পারলেন না!

"জীবন জানি ক্ষনস্থায়ী, একদিন শেষ হবে।
যে'কটা দিন জীবন আছে, লাল-হলুদেই রবে।

শেষ যাত্রায় একদিন আমি পরে রইবো একা।
মুঁদিত আঁখী, নিঃস্পন্দন। লাল-হলুদে ঢাকা!"

Related Articles

More Articles

Latest News

More News
Club News Posted on August 16, 2017

Kingfisher East Bengal victorised after a tough fight.

Kingfisher East Bengal had had played their second match today again...