EAST BENGAL the Real POWER -The Official Website
EAST BENGAL the Real POWER Fans

কলকাতা লীগে ইষ্ট বেঙ্গলের সামনে কাল প্রাক্তনীর চ্যালেঞ্জ.

২০১৫ মরশুমে ছিলেন ইষ্ট বেঙ্গলে, তারপর বদলে আনা হলো মর্গ্যান কে। গতো বছর মহামেডানের কোচ হয়ে আটকে দিয়েছিলেন লাল-হলুদের বিজয় রথ, ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন আরেক বাতিল, জিতেন মূর্মূ। তিনি লাল-হলুদের এক সময়ের স্ট্রাইকার বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য.

ডং 'নয়ন মনি' হয়ে ওঠা, মোহনবাগান কে বলে বলে ৪ গোলে হারানো,সবই তার আমলেই হয়েছিলো। তিনি তলে যাওয়ার পর মোহনবাগানের বিরুদ্ধে আর জয় আসেনি লাল-হলুদের। সেই ময়দানের 'বিশু' ই কাল প্রতিপক্ষ দলের হেড স্যার। সঙ্গে গতো মরশুমে সুপার কাপ ফাইনালের গোলদাতা ঘ্যানেফো আনসুমানা ক্রোমা এবং অ্যান্টনি উল্ফ।

এফ.সি.আই কে ৫ গোলে হারিয়ে কোলকাতা লীগ জেতার দিকে অনেকটাই এগিয়ে গেছে মোহনবাগান। সেখানে আজ আমনা-কাসিম দের না থাকাটা বড়ো ফ্যাক্টর লাল-হলুদের। তবে আছেন প্রথম ম্যাচেই গোল করে দেওয়া বিশ্বকাপার জনি অ্যাকোস্তা। জবি-গগণদীপ দের নিয়ে কতো বড়ো ব্যাবধানে জেতা যায়, সেই নিয়ে ভীষণ চাপানউতর চলছে প্রথম থেকেই, তাও ডার্বি তে ২ গোলে পিছিয়ে যেভাবে ড্র করলো ইষ্ট বেঙ্গল, তারপর অবশ্য কিছুটা মনোবল বাড়তেই পারে তাদের। কিন্তু সামনে যখন বিশ্বজিৎ, তখন বারতি সতর্কতা প্রয়োজন তো বটেই, ইতিমধ্যেই মোহনবাগানের বিরুদ্ধে পিছিয়েও শেষে ড্র করে তারা আর রঘু নন্দীর মহামেডান কে তো হারিয়েই দিয়েছিলো। আক্রমনে ক্রোমা যেমন জাত চেনাতে মরিয়া, তেমনিই বিশ্বজিৎ ও লাল-হলুদ থেকে সরে যাওয়ার আগুন বুকে নিয়ে নামবেন, তা বলাই যায়.

এখন দেখার সুভাষ-বিশ্বজিৎ দের মগজাস্ত্রের লড়াইয়ে শেষ হাসি কে হাসে.

Related Articles

More Articles

Latest News

More News
Club News Posted on November 01, 2018

লক্ষীবারে পাহাড়ে শিলং বধ করলো ইস্টবেঙ্গল.

খেলার শুরু থেকেই মনে হচ্ছিলো, এ যেন ব...